পলক আর এমন কাজ করবে না : কাদের

পলক আর এমন কাজ করবে না : কাদের

সম্প্রতি হেলমেট ছাড়া বাইকে চড়ে তার ছবি সোশ্যাল সাইটে প্রকাশ করায় সমালোচনা তৈরি হয়ছে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলককে ঘিরে। গত মঙ্গলবার মোটর বাইকে চড়ে সময়মতো কার্যালয়ে গিয়ে প্রশংসিত হলেও হেলমেট না থাকায়  সমালোচনার মুখে পড়েন তিনি। আজ এ প্রসঙ্গে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের জানিয়েছেন, নিজের ভুল বুঝতে পেরছেন পলক। তিনি আর এমনটা করবেন না।

বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাব দিতে গিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, 'আমি তাকে জিজ্ঞাসা করেছিলাম অ্যাজ জেনারেল সেক্রেটারি অফ পার্টি। হি এক্সপ্রেসড হিজ রিগ্রেট ফর ইট এবং সে বলেছে যে, ইটস এ মিসটেইক, আমি আর রিপিট করব না। এ কথাটা খুব খোলামনে স্বীকার করেছে, এরপর তো কিছু বলতে পারি না।'

উল্লেখ্য, নতুন সরকারে শপথ নেওয়ার পর দিন দুপুরে মোটরবাইকে চেপে আগারগাঁওয়ের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগে গিয়েছিলেন আইসিটি মন্ত্রী। সেই ছবি তিনি নিজের ফেইসবুক পেইজেও পোস্ট করেন। কিন্তু সেই ছবিতে তার মাথায় হেলমেট না থাকায় সোশ্যাল সাইটে শুরু হয় সমালোচনা। প্রটোকলের গাড়ি ছেড়ে প্রতিমন্ত্রী কেন মোটরবাইকে চেপেছিলেন, তার কারণ জানিয়ে ওইদিন বিকালে সংবাদ বিজ্ঞপ্তি পাঠায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, 'সংসদ ভবন থেকে আইসিটি টাওয়ারের উদ্দেশে রওনা হয়ে পলক যানজটে পড়ে প্রটোকল ছেড়ে মোটর সাইকেলে চড়েন। সবাইকে অবাক করে পূর্ব নির্ধারিত সময়ে নিজ কর্মস্থলে উপস্থিত হন।'

এছাড়া পলক নিজে তার সেই ফেসবুক পোস্টে হেলমেট না পরার কারণ কমেন্টে জানিয়ে লিখেন, 'তাড়াহুড়ো করে যাওয়ার জন্য আমি যে বাইকের সাহায্য নিয়েছি, তার কাছে কোনো বাড়তি হেলমেট ছিল না। আর ওটা রাইড শেয়ারিংয়ের বাইকও ছিল না, ব্যক্তিগত বাইক ছিল।'

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বরে নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে গিয়ে কিছু ছবি নিজের ফেইসবুকে পোস্ট করেন সড়কমন্ত্রী কাদের। সেখানে কয়েকটি ছবিতে তাকে হেলমেট ছাড়া বাইকে চড়তে দেখা গেলে সোশ্যাল সাইটে সমালোচনা হয়েছিল।