ইসিতে আপিলের শেষ দিন আজ

ইসিতে আপিলের শেষ দিন আজ

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রার্থিতা যাচাই-বাছাইয়ে রেকর্ডসংখ্যক মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়ায় আপিলের হিড়িক পড়েছে নির্বাচন কমিশনে। প্রার্থিতা ফিরে পেতে মনোনয়নপত্র বাতিলের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনে গত দুই দিনে আপিল করেছেন ৩১৯ জন সংক্ষুব্ধ প্রার্থী। এর মধ্যে সোমবার প্রথম দিনে ৮৪ ও মঙ্গলবার ২৩৫ জন আপিল করেন। আজ বুধবার (৫ ডিসেম্বর) এই আপিল গ্রহণের শেষ দিন।

এছাড়া আগামী ৬, ৭ ও ৮ ডিসেম্বর আপিলের শুনানি করে নিষ্পত্তি করবে ইসি। সকাল ১০টা থেকে আপিলের শুনানি শুরু হবে। শুনানিতে প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ (সিইসি) অন্যান্য কমিশনার, ইসির সচিব ও অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটরা উপস্থিত থাকবেন। ইতোমধ্যে নির্বাচন ভবনের ১১ তলায় শুনানির জন্য ট্রায়াল রুম তৈরি করেছে ইসি।
আপিলকারীদের মধ্যে অন্যতমরা হলেন, বিএনপি প্রার্থী রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, জাতীয় পার্টির সাবেক মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদার, জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্য সোহেল রানা, মেজর (অব.) মনজুর কাদের, ইমরান এইচ সরকার প্রমুখ।

এক শতাংশ ভোটার না থাকা, ত্রুটিপূর্ণ মনোনয়ন, লাভজনক পদে থাকা, হলফনামায় স্বাক্ষর না থাকা, আয়কর রিটার্ন দাখিল না করা, ঋণ খেলাপি, দণ্ডপ্রাপ্ত এবং অন্যান্য কারণে তাদের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছিল।

এদিকে এত আপিলের কী হবে? এমন প্রশ্ন এখন ঘুরপাক খাচ্ছে রাজনৈতিক মহলে। আপিলকারীরা নির্বাচন কমিশনের কাছে সুবিচার পাবেন কিনা, তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন নির্বাচন বিশ্লেষকরা। তারা বলেছেন, ঋণ-বিল খেলাপি হওয়া ছাড়াও এবারে ছোটখাটো ভুলত্রুটির কারণেই বেশি মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে।

বিএনপির প্রার্থী রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু বলছেন, পূর্বপরিকল্পিতভাবে তার মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে। নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার বলেছেন, ‘প্রার্থীদের আপিল নির্বাচন কমিশন নিরপেক্ষভাবে নিষ্পত্তি করবে। আমরা যা কিছু করব, তা আইনানুগভাবেই করতে হবে। কারও প্রতি পক্ষপাতিত্ব আমরা অবশ্যই দেখাব না। প্রতিটি কেসেরই (আপিল) মেরিট দেখব।’