জয়পুরহাটে বৈদ্যুতিক আগুনে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৮

জয়পুরহাটে বৈদ্যুতিক আগুনে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৮

জয়পুরহাট শহরে বৈদ্যুতিক গোলযোগ থেকে এক বাড়িতে আগুন লেগে একই পরিবারের আটজন আহত হয়। এরপর একে একে মৃত্যু হয় তাদের মধ্যে আটজনের।

গতকাল বুধবার রাত ১০টার দিকে জয়পুরহাট শহীদ জিয়া ডিগ্রি কলেজের কাছে শহরের আরামনগর এলাকায় দুলাল হোসেনের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।  

জয়পুরহাট পুলিশ সুপার রশিদুল হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

দুর্ঘটনার পর পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে দুলালের স্ত্রী মোমেনা বেগম (৬৫) তাদের ছেলে আব্দুল মুমিন (৩৭) ও মুমিনের মেয়ে জেএসসি পরীক্ষার্থী বৃষ্টির (১৪) পোড়া লাশ উদ্ধার করে। এ সময় দুলাল হোসেন (৭১), মোমিনের স্ত্রী পরিনা বেগম (৩০), তাদের অন্য দুই যমজ মেয়ে হাসি ও খুশি (১২)  এবং ছেলে আব্দুর নূরকে (৬)আশঙ্কাজনক অবস্থায় পাঠানো হয় জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে। সেখান থেকে ওই পাঁচজনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে নেওয়ার পথে ভোরের দিকে দুলাল ছাড়া বাকি সবার মৃত্যু হয়। এরপর শেষ পর্যন্ত দুলালেরও মৃত্যু হয়।

জয়পুরহাট ফায়ার স্টেশনের পরিদর্শক সিরাজুল ইসলাম ঘটনাটি নিশ্চিত করেছেন। রাতে মোমেনা বাসার রাইস কুকারে রান্না করার সময় বৈদ্যুতিক গোলযোগ থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়।