যুক্তরাষ্ট্রে দিয়ানাত মসজিদে অগ্নিসংযোগ

যুক্তরাষ্ট্রে দিয়ানাত মসজিদে অগ্নিসংযোগ

রমজান শুরু হওয়ার পর যুক্তরাষ্ট্রের কানেকটিকাটের নিউ হ্যাভেন শহরে দিয়ানাত মসজিদে প্রতিদিনই শত শত মুসলমান ইফতার করেন। এরপর বন্ধু ও স্বজনদের নিয়ে তারাবিহ নামাজ পড়তে জমায়েত হন।

কিন্তু রোববারের এক ঘটনা তাদের জন্য যার-পরনাই বেদনায়ক খবর নিয়ে এসেছে। বিকাল ৪টার আগেই মসজিদটিতে আগুন ধরে যায়। মসজিদটি এমনভাবে পুড়ে গেছে, যাতে আর নামাজ কিংবা ইফতার করা সম্ভব না।-খবর নিউ ইয়র্ক টাইমসের

তবে সোমবার শহর কর্তৃপক্ষ নতুন এক মর্মান্তিক খবর দিলেন, যাতে বলা হয়েছে মসজিদটিতে ইচ্ছাকৃতভাবেই অগ্নিসংযোগ করা হয়েছে।

তুর্কিশ-আমেরিকান রিলিজিয়াস ফাউন্ডেশনের কানেকটিকাট শাখার প্রেসিডেন্ট হায়দার এলেভি বলেন, এতে আমরা সবাই ব্যথিত হয়েছি। এখন সবাই দুঃখিত।

কর্তৃপক্ষ বলছেন, মসজিদটিতে কেন আগুন ধরিয়ে দেয়া হয়েছে, তা এখনো পরিষ্কার না। অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় তদন্ত চলছে, এখনো কেউ গ্রেফতার হননি।

এলেভি বলেন, আগুনে কেউ হতাহত হননি। মসজিদটিতে ভালোই ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। তবে নিউ হ্যাভেন অগ্নিনির্বাপণ দফতর থেকে বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যায়নি।

পুড়ে কয়লা হয়ে যাওয়া মসজিদটির সামনে সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে অগ্নিনির্বাপণ বিভাগের প্রধান জন অ্যালস্টোন বলেন, এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় কেন্দ্রীয় আইনপ্রয়োগকারী সংস্থা সহায়তা করছে।

এক সংবাদ সম্মেলনে গভর্নর নেড ল্যামন্ট বলেন, এ ধরনের হামলা অবশ্যই বেদনাদায়ক ও বিদ্বেষপূর্ণ।

এর আগে গত মার্চে নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদে অস্ট্রেলীয় এক খ্রীস্টান জঙ্গির এলোপাতাড়ি গুলিতে ৫১ মুসল্লি নিহত হয়েছেন।

সৌজন্যে :  যুগান্তর