যেভাবে ভারতীয় সেনাবহরে হামলা চালায় জঙ্গিরা

 যেভাবে ভারতীয় সেনাবহরে হামলা চালায় জঙ্গিরা

জম্মু-কাশ্মীরে জঙ্গি হামলার ঘটনায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছে ভারত ও পাকিস্তানে। হামলায় ভারতের ৪৪ সামরিক সদস্য নিহত হন। আহত হন আরও অনেকে। নিহতের সংখ্যা বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এরই মধ্যে হামলার জন্য পাকিস্তানি সংগঠন ‘জইশ-ই-মহম্মদ’কে দায়ী করে দেশটির (পাকিস্তান) বিরুদ্ধে কড়া হুঁশিয়ারি দিয়েছে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।
শুধু ভারত নয়, হামলার ঘটনায় নিন্দার ঝড় বইছে বিশ্বব্যাপী। ইতোমধ্যে বাংলাদেশ, রাশিয়াসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে এ ঘটনায় নিন্দা জানানো হয়েছে। কীভাবে হামলা হয় সেনাদের ওপর? সিআরপিএফ হচ্ছে ভারতের কেন্দ্রীয় আধাসামরিক বাহিনী। বৃহস্পতিবার বিকালের বাহিনীটির প্রায় আড়াই হাজার সদস্য ৭০টি ট্রাক আর বাসে করে জম্মু থেকে শ্রীনগরে যাচ্ছিলেন। পথে পুলওয়ামা জেলার অবন্তীপুরার কাছে লেথপোড়া নামক জায়গায় পৌঁছলে তাদের ওপর হামলা চালায় জঙ্গিরা। জানা গেছে, ফিল্মি স্টাইলে ভারতীয় সেনাদের ওপর হামলা চালায় জাঙ্গিরা। প্রথমে তারা আইইডি বিস্ফোরক ভর্তি একটি এসইউভি (গাড়ি) সেনাবহরের একটি বাসকে ধাক্কা দিয়ে বহরে ঢুকিয়ে দেয়। এরপর ৫৪ নম্বর ব্যাটালিয়নের একটি গাড়িতে বিস্ফোরণ ঘটায়। এর সঙ্গে সঙ্গেই আশপাশ থেকে বেরিয়ে আসে আগে থেকেই অবস্থান নেওয়া জঙ্গিরা। ভারতের সেনাদের লক্ষ্য করে বৃষ্টির মতো গুলি চালাতে থাকে তারা। যে বাসটিতে বিস্ফোরণ ঘটানো হয় সেটি সম্পূর্ণভাবে ধ্বংস হয়ে গেছে। এরপর সেখান থেকেই বহরের অন্য গাড়িগুলোতে গুলি চালায় জঙ্গিরা। হামলার পর ঘটনাস্থলের কিছু চিত্র সংগ্রহ করেছেন বিভিন্ন গণমাধ্যমের কর্মীরা। এসব চিত্রে যে আকারের গর্ত দেখা যাচ্ছে, তা দেখে বিশ্লেষকরা বলছেন, সম্ভবত শুধু গুলি নয়, রকেটচালিত গ্রেনেড বা আরপিজিও ব্যবহার করা হয়েছে এই হামলায়।

সূত্র: ওয়ান ইন্ডিয়া, বিবিসি