ফের গান নিয়ে সরব শাকিরা

ফের গান নিয়ে সরব শাকিরা

শাকিরা ইসাবেল মেবারাক রিপোল। বিশ্বে খুব পরিচিতি একটি নাম। তবে মানুষ তাকে শাকিরা নামেই চেনে। নানামুখী প্রতিভার অধিকারী হলেও গানের জন্য এ কলম্বিয়ান গায়িকা প্রচুর ভক্ত পেয়েছেন বিশ্বজুড়ে। দু'বার গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ড, সাতবার ল্যাটিন গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন।  

একাধারে গায়িকা, গীতিকার, সুরকার, সঙ্গীত প্রযোজক এবং নৃত্যশিল্পীও তিনি। জন্মসূত্রে লাতিন আমেরিকান হলেও পিতৃসূত্রে মধ্যপ্রাচ্যের কন্যা শাকিরা। আদি নিবাস লেবানন। কিন্তু শাকিরা এ যোগসূত্র নিয়ে মোটেও হীনমন্যতায় ভোগেন না।

তার মতে, ব্যক্তিগত জীবন সম্পর্কে তিনি কখনই লুকোচুরি পছন্দ করেন না। বরং এটি নিয়ে কথা বলতেই তার ভালো লাগে। খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বী হিসেবে বেড়ে উঠলেও আরব সংস্কৃতি থেকে কখনই দূরে ছিলেন না এ পপ গায়িকা। বরং অনেককে প্রশিক্ষকের কাছে বেলি নাচের তালিম নিতে শোনা গেলেও শাকিরার তালিম হয়েছে ঘরের ভেতর। ছেলেবেলায় দাদির কাছে হাতেখড়ি হয় বেলি নৃত্যের।

দাদিও প্রশিক্ষক হিসেবে মোটেই খারাপ ছিলেন না। এজন্যই উল্লেখযোগ্য নাচের ভঙ্গিমার জন্য পরিচিত শাকিরা। তার মাঝে রয়েছে বই পড়ার নেশা। খুব পড়তে ভালোবাসেন ৩৯ বছর বয়সী এ গায়িকা।

এর আগে আর্জেন্টিনার প্রেসিডেন্টের ছেলে এন্টোনিও ডে লা রুয়ার সঙ্গে প্রায় ১১ বছরের সম্পর্কের পাট চুকিয়েছেন কোনো ঝামেলা ছাড়াই। সম্প্রতি তিনি গানের জন্য বিশ্বভ্রমণে বের হয়েছেন। শুরু করেছেন হারিয়ে যাওয়া স্বর্ণ মোড়ানো শহর জার্মানির এলডোরাডো দিয়ে। এ শহর নিয়ে মজার মজার কাহিনী রয়েছে। সেই মজার ছলেই হোক আর যে ভাবনা থেকেই হোক, শাকিরা তার ১১তম স্টুডিও অ্যালবামের নাম দিয়েছেন এ শহরের নামে ‘এলডোরাডো’।

কথা ছিল, গত বছরের শেষের দিকে এ অ্যালবামের জন্য বিশ্ব ভ্রমণে বের হবেন শাকিরা। কিন্তু হঠাৎ করে কণ্ঠনালিতে ক্ষত ধরা পড়ায় কনসার্টের তারিখ পিছিয়ে দিতে হয়েছে তাকে। অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে গত ৩ জুন থেকে শুরু করলেন তার এলডোরাডো ভ্রমণ। সাত বছর পর একক কনসার্টের জন্য মঞ্চে উঠে সঙ্গীতানুরাগীদের শুভেচ্ছা আর ভালোবাসায় সিক্ত হচ্ছেন এ সুন্দরী গায়িকা।

ইউরোপ, এশিয়া, উত্তর আমেরিকা ও লাতিন আমেরিকার বেশ কয়েকটি দেশে কনসার্টের পর ভ্রমণ শেষ করবেন নভেম্বরে নিজ দেশ কলম্বিয়ায় গিয়ে। শুরুটা বেশ জমিয়েছেন তিনি। অনেক দিন পর মঞ্চে উঠলেও তার কণ্ঠের জৌলুশ কমেনি এতটুকুও।

সেই আগের মতো করেছেন বেলি ড্যান্স। গানের সঙ্গে এ নাচটা খুব ভালোই আয়ত্তে নিয়েছেন তিনি। শুধু আনন্দই নয়, এলডোরাডো ভ্রমণে তাকে জন্য তিক্ত অভিজ্ঞতার মুখোমুখিও হতে হয়েছে। এ কনসার্ট ভ্রমণ উপলক্ষে আয়োজকরা শাকিরার জন্য একটি গলার লকেট নকশা করে দিয়েছে।

বিক্রির জন্য সেই লকেটের ছবি আবার তারা অনলাইনেও প্রকাশ করেছে। কিন্তু সেই লকেট ভক্তরা পছন্দ না করায় হয়েছে উল্টো। ভক্তদের তোপের মুখে ওই লকেটের ছবি সরিয়ে অন্য নকশার লকেট এখন বিক্রি করছে তারা।

কারণ, শাকিরার ভক্তদের দাবি, ওই লকেটের নকশা একটি কালো রঙের সূর্যের, যা জার্মানির নব্য-নাজি দলের প্রতীক। জার্মান গণমাধ্যমও বলছে একই কথা। এডলফ হিটলার ও তার নাজি পার্টিকে অসমর্থন করার কারণের তো অভাব নেই। এমনকি তার অনুসারীদের নব্য-নাজি দলকেও।

তাহলে কেন শাকিরা এমন নকশার লকেট পরবেন বা ভক্তদের কিনতে উৎসাহ দেবেন? এজন্য অবশ্য লকেটটির প্রস্তুতকারক কোম্পানি টুইটারে ক্ষমাও চেয়েছে। শাকিরা অবশ্য এ ব্যাপারে এখনও কোনো মন্তব্য করেননি।