হোয়াইটওয়াশ এড়াতে আজ বিকেলে মাঠে নামবে টাইগাররা

হোয়াইটওয়াশ এড়াতে আজ বিকেলে মাঠে নামবে টাইগাররা

সিলেটভিউ ডেস্ক :: শ্রীলংকার বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে আজ বুধবার। বাংলাদেশ সময় বিকেল ৩টায় কলম্বোর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিতব্য এ ম্যাচে লঙ্কানদের মুখোমুখি হবে টাইগাররা। সেই সঙ্গে হোয়াইটওয়াশের লজ্জা এড়াতে চাইবে তামিমের দল। কারণ ইতোমধ্যে এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ জিতে গেছে শ্রীলংকা।

বিশ্বকাপের ব্যর্থতা মুছে নতুনভাবে পথ চলার লক্ষ্য নিয়ে এবারের শ্রীলংকা সফর শুরু করে বাংলাদেশ। দ্বাদশ বিশ্বকাপে দশ দলের মধ্যে অষ্টম হয় টাইগাররা। তাই ওই দুঃখ ভুলতে তিন ম্যাচের সিরিজে ভালো খেলার লক্ষ্যই ছিল টাইগারদের। কিন্তু মাঠের লড়াইয়ে পুরোপুরি নিষ্প্রভ বাংলাদেশ। 

প্রথম ওয়ানডেতে লঙ্কান পেসার লাসিথ মালিঙ্গার বিদায়ী ম্যাচে ৯১ রানে ম্যাচ হারে বাংলাদেশ। টস জিতে প্রথমে ব্যাট করে কুশল পেরেরার সেঞ্চুরিতে ৮ উইকেটে ৩১৪ রানের বড় সংগ্রহ পায় শ্রীলংকা। পেরেরা মারমুখী মেজাজে ৯৯ বলে ১১১ রান করেন। জবাবে ৩৯ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে ব্যাকফুটে চলে যায় বাংলাদেশ। সেখান থেকে দলকে লড়াইয়ে ফেরান মুশফিকুর-সাব্বির। পঞ্চম উইকেটে দুর্দান্ত ব্যাটিং নৈপুন্য প্রদর্শন করেন তারা। ৯৯ বলে ১১১ রানের জুটি গড়েন মুশফিক-সাব্বির। এতে খেলায় ফিরেছিল বাংলাদেশ। কিন্তু ৭টি চারে ৫৬ বলে ৬০ রান করে থেমে যান সাব্বির। এরপর উইকেটে সেট হওয়া মুশফিককে কেউই সঙ্গ দিতে না পারায় ২২৩ রানে গুটিয়ে যেতে হয় বাংলাদেশকে। মুশফিক করেন ৮৬ বলে ৬৭ রান।

দ্বিতীয় ওয়ানডেতে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্বান্ত নিয়ে বিপদেই পড়ে বাংলাদেশ। আবারো ব্যর্থ হন টপ-অর্ডার ব্যাটসম্যানরা। স্কোরবোর্ডে ৮৮ রান যোগ হতেই পাঁচ ব্যাটসম্যান প্যাভিলিয়নে। এ অবস্থায় আবারো বাংলাদেশের ত্রাণকর্তার ভূমিকা নেন মুশফিক। এবার আর সাব্বিরের সহায়তা পাননি তিনি। পেয়েছেন লোয়ার-অর্ডারের মেহেদি হাসান মিরাজের সঙ্গ। তাই সপ্তম উইকেটে ৮৪ রান শ্রীলংকার বোলারদের কাছ থেকে আদায় করে নেন মুশফিক-মিরাজ। এতে ২০০ রানে পৌছায় বাংলাদেশের স্কোর।

মিরাজ ৪৩ রানে থামলেও এক প্রান্ত আগলে বাংলাদেশকে লড়াই করার পুঁজি এনে দেয়ার সর্বাত্মক চেষ্টা করেন মুশফিক। তার চেষ্টা পুরোপুরি সফল না হলেও ৮ উইকেটে ২৩৮ রানের সম্মানজনক স্কোরে পৌঁছাতে পারে বাংলাদেশ। কারণ শতরানের আগেই ৫ উইকেট হারিয়ে বসেছিল টাইগাররা। দলকে লড়াই করার পুঁজি এনে দিতে না পারার সাথে সাথে ব্যক্তিগত আক্ষেপও ছিল মুশফিকের। কারণ মাত্র ২ রানের জন্য সেঞ্চুরি মিস দুর্দান্ত ফর্মে থাকা মুশফিক। ৬টি চার ও ১টি ছক্কায় ১১০ বলে অপরাজিত ৯৮ রান করেন মুশফিক।

তবে বাংলাদেশের ছুড়ে দেওয়া ২৩৯ রান টপকাতে মোটেও বেগ পেতে হয়নি শ্রীলংকার। ওপেনার আভিস্কা ফার্নান্দোর ৮২ ও সাবেক অধিনায়ক অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজের জোড়া হাফ-সেঞ্চুরিতে ৩২ বল হাতে রেখে লক্ষ্যে পৌঁছে ৭ উইকেটে ম্যাচ জিতে সিরিজ জয় নিশ্চিত করে ফেলে শ্রীলংকা।

এখন দেখার বিষয় শেষ ওয়ানডেতে লঙ্কানদের বিপক্ষে তিন বিভাগেই দলের সকলে জ্বলে উঠতে পারে কি-না? আর এ ম্যাচেও যদি সেই ব্যর্থতার পুনরাবৃত্তি ঘটে তাহলে হোয়াইটওয়াশের লজ্জা পেতে হবে টাইগারদের। তবে দলের সকলে চাইবে অন্তত শেষ ম্যাচটি জিতে হোয়াইটওয়াশ এড়াতে।