Tuesday , August 22 2017
Home / রসালো খবর / বিশ্ব বেতার দিবস শুক্রবার
radio

বিশ্ব বেতার দিবস শুক্রবার

খবর ২৪: বিশ্বের অন্যান্য স্থানের মতো শুক্রবার ( ১৩ ফেব্রুয়ারি ) যুবকদের প্রতি রেডিওর গুরুত্ব তুলে ধরে বাংলাদেশেও বিশ্ব বেতার দিবস উদযাপিত হবে।

২০১১ সালে জাতিসংঘের শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সাংস্কৃতিক সংস্থার (ইউনেস্কো) ৩৬ তম সাধারণ অধিবেশনে প্রতিবছরের ১৩ ফেব্রুয়ারি বিশ্বব্যাপী দিবসটি উদযাপনের প্রস্তাব অনুমোদিত হয়।

এ দিবস উদযাপনের লক্ষ্য হচ্ছে বেতারের গুরুত্ব সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি করা এবং এর মাধ্যমে তথ্যে প্রবেশে সুযোগ সৃষ্টি করা।

এ উপলক্ষে দিবসটি গুরুত্ব তুলে ধরে সরকার, বাংলাদেশ বেতার এবং দেশের বেসরকারি রেডিও স্টেশনগুলো বিশেষ অনুষ্ঠান প্রচারে বিস্তারিত কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।

দিবসটির গুরুত্ব তুলে ধরে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাণী দিয়েছেন।

রাষ্ট্রপতি তাঁর বাণীতে বলেছেন, শিক্ষা, বিনোদন ও তথ্যমূলক কর্মসূচি প্রচারসহ বিভিন্ন জাতীয় ইস্যুতে গণসচেতনতা সৃষ্টিতে বাংলাদেশ বেতার গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছে।

রাষ্ট্রপতি তাঁর বাণীতে বলেছেন, যুগের চাহিদাকে ধারণ করে বাংলাদেশ বেতার মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড প্রচারসহ শুদ্ধ ও পরিশীলিত সংস্কৃতি চর্চা ও বিকাশে অনবদ্য অবদান রেখে যাচ্ছে।

রাষ্ট্রপতি বলেন, বেতারের গুরুত্ব জনসমক্ষে তুলে ধরতে জাতিসংঘের অঙ্গসংগঠন ইউনেস্কোর পৃষ্ঠপোষকতায় ২০১২ সাল থেকে প্রতিবছর ১৩ ফেব্রুয়ারি বিশ্ব বেতার দিবস উদ্যাপিত হচ্ছে। এ উদ্যোগকে একটি গুরুত্বপূর্ণ উদ্যোগ বলে তিনি উল্লেখ করেন।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ বেতার এদেশের সবচেয়ে প্রাচীন, বৃহত্তম ও শক্তিশালী গণমাধ্যম। ১৯৩৯ সালের ১৬ ডিসেম্বর প্রতিষ্ঠার পর থেকে বিগত ৭৫ বছর যাবৎ তথ্য, শিক্ষা ও বিনোদনের পাশাপাশি জনসচেতনতা সৃষ্টিতে এই গণমাধ্যমটির ভূমিকা অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ।

রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘জাতির মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে এই মাধ্যমটি এদেশের গণমানুষের আশা-আকাঙ্খা পূরণে যথার্থ ভূমিকা রেখেছে।

যুগের চাহিদাকে ধারণ করে বাংলাদেশ বেতার মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ডের প্রচারসহ শুদ্ধ ও পরিশীলিত সংস্কৃতি চর্চা ও বিকাশে অনবদ্য অবদান রেখে যাবে বলে আমি বিশ্বাস করি।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাঁর বাণীতে সাধারণ মানুষের জীবন-মানের উন্নয়ন এবং তরুণ প্রজন্মকে বেতারমুখী করতে আরও নতুন নতুন কার্যকর কর্মসূচি প্রণয়ন করার আহবান জানিয়েছেন।

তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন, ‘বিশ্ব বেতার দিবস উদ্যাপন বাংলাদেশ বেতারের পাশাপাশি অন্যান্য বেসরকারি রেডিও ও কমিউনিটি রেডিওসমূহের অনুষ্ঠান ও সংবাদ উপস্থাপনাকে আরও গতিশীল করবে।
সাধারণ মানুষের জীবন-মানের উন্নয়ন এবং তরুণ প্রজন্মকে বেতারমুখি করতে আরও নতুন নতুন কার্যকর কর্মসূচি প্রণয়ন করবে।’

বিশ্ব বেতার দিবস-২০১৫ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশসহ বিশ্বের বেতার শ্রোতা, সম্প্রচারকর্মী, শিল্পী, কলাকুশলীসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন, বর্তমানে বাংলাদেশ বেতারের পাশাপাশি বেসরকারি এফএম রেডিও ও কমিউনিটি রেডিও কাজ করে যাচ্ছে। দেশের প্রান্তিক এলাকার জনগণকে উন্নয়নের মূলধারায় ফিরিয়ে আনতে বেতার তাৎপর্যপূর্ণ অবদান রেখে চলেছে।

মহান মুক্তিযুদ্ধে ‘স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রে’র গৌরবময় ভূমিকা মুক্তিযোদ্ধাদের পাশাপাশি অবরুদ্ধ দেশবাসীকে মুক্তির প্রেরণায় উদ্দীপ্ত করেছিল উল্লেখ করে তিনি বলেন, সারাবিশ্বে বেতার এখনও অন্যতম জনপ্রিয় গণমাধ্যম।
১৯৩৯ সাল থেকে আমাদের এ ভূখন্ড বেতার সমৃদ্ধ অনুষ্ঠান ও বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ সম্প্রচারের মাধ্যমে আবহমান বাংলার কৃষ্টি, সংস্কৃতি এবং ঐতিহ্য ধারণ ও লালন করে চলেছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, শহর-বন্দর-গ্রাম নির্বিশেষে প্রত্যন্ত অঞ্চলের জনমানুষের তথ্য, শিক্ষা ও বিনোদনের অন্যতম মাধ্যমে পরিণত হয়েছে বেতার।

ঝড়-ঝঞ্ঝা, দুর্যোগ-দুর্বিপাকে বেতারের কর্র্মীবাহিনী নিরলসভাবে মানুষের কাছে তথ্য প্রদান করে দেশ ও জাতির সেবায় নিয়োজিত রয়েছে।
ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার পথচলায় আমাদের বেতার চ্যানেলগুলোও ডিজিটাল ও অনলাইন সম্প্রচারের দিকে এগিয়ে যাবে প্রত্যাশা করে

তিনি বিশ্ব বেতার দিবস-২০১৫ উপলক্ষে গৃহীত সকল কর্মসূচির সার্বিক সাফল্য কামনা করেন।

Check Also

ছাত্রীদের নগ্ন করে তল্লামি

ছাত্রীদের নগ্ন করে দেহ তল্লাশি!

খবর২৪: ভারতের উত্তরপ্রদেশ রাজ্যের একটি আবাসিক স্কুলে প্রায় ৭০ জন ছাত্রীকে নগ্ন করে তাদের দেহ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *